1/3

আমাদের সাথে যুক্ত থাকতে :

Success! Message received.

তাহের ও জিয়া: বিপরীত স্রোতের যাত্রী

 

বিশেষ সামরিক আদালতে কর্নেলতাহেরের মৃত্যুদণ্ডের রায় চ্যালেঞ্জ করে রিটের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায়ের পর ১৯৭৫ সালের ৭ নভেম্বরের ঘটনাটি ফের আলোচনায় এসেছে। কথাসাহিত্যিক শাহাদুজ্জামানের লেখায় এই ঘটনার প্রধান দুই কুশীলব আবু তাহের ও জিয়াউর রহমানের ভূমিকার ওপর আলো ফেলা হয়েছে। ..বিস্তারিত

বই ও প্রকাশনাসমূহ

তাহেরের স্বপ্ন ও আজকের বাংলাদেশ

 

২১ জুলাই ১৯৭৬ সাল। আমরা কজন সারা রাত নির্ঘুম কাটিয়েছি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরে বাংলা হলে। ভোর থেকে ক্যানটিনে বসে আছি, জেলখানা থেকে কোনো খবর আসে কি না। তখন ছিল না কোনো বেসরকারি টেলিভিশন, সরাসরি সম্প্রচার তো ছিলই না, খবরের কাগজে ছিল কড়া সামরিক নিয়ন্ত্রণ। কখন ফাঁসি হলো তা জানতে আমাদের সকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হলো। ক্যানটিনে ছিলেন শরীফ নূরুল আম্বিয়া, আফতাব আহমেদ, খায়রুজ্জামান বাবুল, মসিউর রহমান দুলালসহ কয়েকজন... বিস্তারিত

কর্নেল তাহের আজও কেন প্রাসঙ্গিক?

 

আজ ২১শে জুলাই মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সেক্টর কমান্ডার শহীদ লেঃ কঃ আবু তাহের বীরউত্তমের ৪০তম আত্মদান দিবস। ১৯৭৬ সালের এই দিনে অবৈধ সামরিক ট্রাইব্যুনালে প্রহসনের রায় প্রদানের মাত্র ৩ দিনের মাথায় অবিশ্বাস্য দ্রুততায় রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে কর্নেল তাহেরকে হত্যা করা হয়। কর্নেল তাহের প্রাণভিক্ষা না চেয়ে প্রকৃত বীরের মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে নিজে মহিমান্বিত হয়েছেন, তার আদর্শকে সমুন্নত রেখেছেন এবং তার সহযোদ্ধাদের গৌরবান্বিত করেছেন।..... বিস্তারিত